নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: সিদ্ধিরগঞ্জে এক গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। শনিবারে রাতে সিদ্ধিরগঞ্জে নতুন আইল পাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে রবিবার রাতে ৩ জনকে আসামী করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছে। তারা হল- সিদ্ধিরগঞ্জ নতুন আইল পাড়া এলাকার রুপচান মিয়ার ছেলে রিতু (২৫), পশ্চিম এনায়েত নগর তাজুলের বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত মোসলেম খন্দকারের ছেলে বিল্লাল হোসেন (২৯) এবং গোদনাইল ধনকুন্ডা এলাকার মৃত মোতালেবের ছেলে সাগর (২৮)। এ ঘটনায় পুলিশ রিতু ও বিল্লাল হোসেনকে গ্রেফতার করেছে। তবে ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে অপর আসামী সাগর।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ঐ ধর্ষিতা সিদ্ধিলগঞ্জের এনায়েত নগর এলাকার একটি প্রিন্টিং কারখানায় কাজ করতো। শনিবার রাত ১১টায় কিশোরীটি তার এক মামা ও ভাইয়ের সাথে কর্মস্থল থেকে বাসায় ফিরছিলো। পথিমধ্যে রিতু ও তার দুই সহযোগী বিল্লাল এবং সাগর ওই কিশোরীকে জোরপূর্বক অপহরণ করে রিতুর বাসায় নিয়ে যায়। এসময় রিতু তার নিজ কক্ষে ঐ গামর্ন্টে কর্মীকে ধর্ষণ করে। এসময় তার দুই সহযোগী বিল্লাল ও সাগর বাহিরে পাহারা দেয়। পরে রাত আনুমানিক ৩টার দিকে ঐ গার্মেন্টকর্মীকে ছেড়ে দেয়া হয়। এই ঘটনায় ধর্ষীতা ঐ রাতেই সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দিলে পুলিশ শনিবার ভোরে ধর্ষক রিতু ও তার এক সহযোগী বিল্লালকে আটক করে। পরে ধর্ষীতা বাদী হয়ে রবিবার রাতে নারী ও শীশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করে ধর্ষক রিতু ও তার দুই সহযোগী বিল্লাল এবং সাগরের নামে। মামলা নং-৫১। এ মামলার আরেক আসামী সাগর পলাতক রয়েছে।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সাত্তার জানান, গার্মেন্টকর্মী ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষকসহ তিন জনের নামে মামলা হয়েছে। দুজন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীকে গ্রেফতারের জন্য আমাদের অভিযান চলছে। খুব শিঘ্রই আমরা তাকে গ্রেফতার করে ফেলবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here