নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন, গণহত্যা, ধর্ষণ ও নিপীড়নের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ ও বাংলাদেশ ছাত্র যুব ঐক্য পরিষদের নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর কমিটি।
বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বক্তারা বলেন, ‘মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর উপর যেভাবে নির্যাতন নিপীড়ন চালাচ্ছে তা সম্পূর্ন মানবতা বিরোধী। শুধু রোহিঙ্গাই নয়, পৃথিবীর যে কোন প্রান্তে মানুষের উপর এমন নির্যাতন কখনোই মেনে নেয়া সম্ভব নয়।’

এসময় তারা মিয়ানমার সরকারের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘মিয়ানমার সরকার দেশটিতে চলমান এই সহিংষতা বন্ধে সম্পূর্ন ভাবে ব্যর্থ হয়েছে। আর এর ফলে মিয়ানমার সরকার অং সাং সু চিকে দেয়া শান্তিতে নোবেল পুরষ্কার ফিরিয়ে নেয়া উচিত।’

বক্তারা সারা বিশ্বের মুসলিম দেশগুলোর নিরবতায় হতাশ প্রকাশ করে বলেন, ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের ব্যাপারে সৌদি আরবসহ অন্যান্য মুসলিম দেশগুলো কেনো কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না? বিষয়টি আমারা অবগত নই। তারা যদি এ বিষয়ে শক্ত পদেক্ষেপ নেয় তাহলে মিয়ানমারে রোরিঙ্গাদের উপড় নির্যাতন বন্ধ হবে এবং বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফিরে যেতে পারবে।’

বক্তারা আরো বলেন, ‘তুর্কি ফাষ্ট লেডি কিছুদিন পূর্বে বাংলাদেশে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পরিদর্শনে এসে যে মায়াকান্না করে গেছেন, তাতে আমরা বিষ্মিত। যখন তুর্কিতে কুর্দি জনগোষ্ঠীর উপড় ওই দেশের সরকার নির্যাতন চালিয়েছিল, তখন কোথায় ছিল তাদের এই মানবতা।’

এসময় বক্তারা সু চির শান্তি পুরষ্কার ফিরিয়ে নেয়ার দাবী জানান এবং রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়াসহ তাদের সহযোগীতায় অবদান রাখায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে শান্তি পুরষ্কার পাওয়ার যোগ্য বলে মনে করেন।

এরপর ৫ দফা দাবী বাস্তবায়নের দাবীতে হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দরা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন।

জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি কমান্ডার গোপীনাথ দাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার দাস এর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, নারায়নগঞ্জ জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর সাহা, মহানগর পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন, নারায়নগঞ্জ মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি লিটন চন্দ্র পাল, সাধারণ সম্পাদক নিমাই দে, নারায়নগঞ্জ জেলা খ্রিষ্টান এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি পিন্টু পলিকাপ পিউরিফিকেশন, সাধারণ সম্পাদক সৌরভ দেউরী, বৌদ্ধ বিহার মন্দিরের পুরোহিত ও সভাপতি চন্দ্র বংশ ভিক্ষু, বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট, নারায়নগঞ্জ জেলার সভাপতি সুভাষ সাহা, বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু সমাজ সংস্কার সমিতি,নারায়নগঞ্জ জেলার সভাপতি কমলেশ সাহা, জাগো হিন্দু পরিষদের সভাপতি কৃষ্ণ দাস কাজল, সাধারণ সম্পাদক সুজন দাস, নারায়নগঞ্জ সদর উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি রঞ্জিত মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক রাজীব তালুকদার, বন্দর উপজেলার সভাপতি শংকর দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক সুজন দাস, নারায়নগঞ্জ জেলা সভাপতি মন্ডলীর সদস্য ভূপতি রঞ্জন বড়–য়া, রূপগঞ্জ উপজেলার সভাপতি রমাকান্ত সরকার, বন্দর উপজেলা পূজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাস, সিদ্বিরগঞ্জ থানা পূজা পরিষদের আহবায়ক শিশির ঘোষ, নারায়নগঞ্জ মহানগর পূজা পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক উত্তম সাহা, কোষাধ্যক্ষ সুশীল দাস, মহানগর ঐক্য পরিষদের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য তাপস বড়ুয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রবাস সাহা, কৃষ্ণ আচার্য, বাদল রায়, অরুন দেবনাথ, প্রচার সম্পাদক ভজন দাস, তপন ঘোষ, তপন সাধু, কোষাধ্যক্ষ পিন্টু রায়, বাংলাদেশ ছাত্র যুব ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এড.অঞ্জন দাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিপন দেবনাথ, প্রচার সম্পাদক বিরাজ পাল চৌধুরী সহ নেতৃবৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here