নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমানের আহবানে সাড়া দিয়ে তার পক্ষে আসবেন না বলে জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের যুবদলের সভাপতি ও নাসিক ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। যেহেতু তিনি বিএনপি’র রাজনীতির সাথে যুক্ত, সেহেতু অন্য দলের প্রার্থীর পক্ষে দাঁড়িয়ে দলের সাথে বেঈমানী করতে পারবেন না বলেও জানিয়েছেন খোরশেদ।
আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে ক্ষমতাশীন মহাজোটের প্রার্থী একেএম সেলিম ওসমান গত ৩ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ শহরের সিটি কাউন্সিলরদের সাথে এক মত বিনিময় সভার আয়োজন করেন। সে সভায় অনুপস্থিত ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের তার পক্ষে আসার আশাবাদ জানিয়ে বলেছিলেন, ‘খোরশেদের সাথে আমার ফোনে কথা হয়। আমার পক্ষে সেও একদিন আসবে’।

সাংসদ সেলিম ওসমানের এই বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে বলেন, একদিন উনার (সাংসদের) প্রেস সহকারী বিশ্বজিৎ দাওয়াত করার জন্য বিশ্বজিতের ফোনে কথা বলিয়ে দিয়েছিল। উনি এক দল করে আমি আরেক দল করি। উনি আশা করতে পারেন, কিন্তু আমার পক্ষে দলের সাথে বেঈমানী করা সম্ভব না। আমিও তো আশা করতে পারি অনেকে আমাদের দলে আসবে।

খোরশেদ আরো বলেন, আহবান করায় আমি মাননীয় সাংসদ সেলিম ওসমানকে ধন্যবাদ জানাই। তবে আমি আমার দলের প্রতি শতভাগ অনুগত থাকতে চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here