নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ছোট্ট নগরী নারায়ণগঞ্জে যানজট যেন মানুষের চিরচেনা জনদূর্ভোগে পরিনত হয়েছে। কিন্তু চলতি বছরের ইংরেজী নববর্ষ থেকেই নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর-বন্দর) আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম সেলিম ওসমান যানজট মুক্ত নগরী উপহার দেয়ার ঘোষণার পর নগরীর দৃশ্যপট পাল্টাতে থাকলেও বর্তমানে অসহনীয় যানজট মোকাবেলা করেই পথচারী ও যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছাতে হচ্ছে।
তবে সেলিম ওসমান যানজট মুক্ত নগরী উপহার দেয়ার প্রয়াস চালিয়ে গেলেও এই উপহারের সুফল ভোগ করা যাচ্ছেনা বলে দাবী করেছেন সাধারন যাত্রী ও পথচারীরা।

গত বছরের জুলাইয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভীর অনুরোধে নগরীর নিতাইগঞ্জ থেকে সেলিম ওসমান ট্রাক স্ট্যান্ড উঠানোর পর নগরীর যানজট কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসলেও প্রধান সড়ক জুড়ে দু’ধারেই অবৈধ ভাবে গাড়ী পার্কিং করে রাখায় এখন নিত্য যানজটে সাধারন যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

শুধু সড়কই নয়, সাধারন মানুষের চলাচলের জন্য ব্যবহৃত নগরীর ফুটপাত গুলোও এখন ব্যবহৃত হচ্ছে মোটর সাইকেল ও গাড়ীর পার্কিং স্থান হিসেবে।

জানাগেছে, গত ১২ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জেলা সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারনী ফোরাম আইনশৃংখা কমিটির মাসিক সভায় উপদেষ্টা ও সাংসদ সেলিম ওসমান এবং সংরক্ষিত আসনের সাংসদ এড. হোসনে আরা বাবলী নগরীর যানজট নিরসনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে জেলা প্রশাসনকে জোড়ালো তাগিদ দিয়েছিলেন।

এছাড়াও প্রত্যেক মাসেই জেলা আইনশৃংখলা কমিটির মাসিক সভায় যানজট নিরসনে ট্রাফিক বিভাগকে জোর তাগিদ দেয়া হলেও প্রয়োজনী লোকবল সংকটের কারনে যানজট নিরসনে রীতিমত হিমশিম খেতে হচ্ছে বলে স্বীকার করেছেন ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তারা।

বুধবার (১১ এপ্রিল) সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, নারায়ণগঞ্জ নগরীর চাষাঢ়া থেকে দুই নং রেল গেইট ও ফলপট্টী থেকে কালীরবাজার চারারগোপ পর্যন্ত সড়কের দু’ধারেই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মালবাহী গাড়ী, ব্যাক্তিগত প্রাইভেট কার, মোটর সাইকেল, সিএনজি অটো রিক্সাসহ রিকশা অবৈধ ভাবে পার্কি করে রাখার কারনে কয়েক মিনিটের পথ পাড়ি দিতে যাত্রীদের বেশ বেগ পোহাতে হচ্ছে।

নগরীর ২নং রেলগেট থেকে চাষাঢা পর্যন্ত চারটি পয়েন্টে ট্রাফিক পুলিশ দায়িত্ব পালন করলেও সড়কের উপর অবৈধ পার্কিং বন্ধে প্রশাসেন কঠোর অভিযান নিয়মিত পরিচালিত না হওয়ার কারনে এই দীর্ঘ যানজটে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে বলে দাবী করেছেন সচেতন যাত্রী পথচারীরা।

আর এই ছোট্ট নগরীকে সত্যিকার অর্থেই যানজট মুক্ত করতে জনপ্রতিনিধিদের মৌখিক পদক্ষেপের পরিবর্তে বাস্তবিক সমন্বিত পদক্ষেপ নেয়ার দাবী জানিয়েছেন সাধারন যাত্রীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here