নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: প্রয়াত শিক্ষাগুরু ড. করুনাময় গোস্বামীর শ্রাদ্ধ পরবর্তী মৎস্যমূখী অনুষ্ঠিত হয়েছে শহরের রামকৃষ্ণ মিশনে।
বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই) দুপুরে স্বর্গীয় শিক্ষাগুরুর পরিবারের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয় এই অনুষ্ঠান।

একুশে পদকপ্রাপ্ত, সঙ্গীতজ্ঞ প্রয়াত শিক্ষাগুরু ড. করুনাময় গোস্বামীর শ্রাদ্ধ পরবর্তী মৎস্যমূখী অনুষ্ঠানে শহরের সর্বস্তরের মানুষ এসছিলেন প্রয়াত এই শিক্ষককে শ্রদ্ধা জানাতে। প্রয়াত শিক্ষাগুরুর সম্মানে সেখানে খোলা হয় শোক বই। শোক বইয়ে স্বর্গীয় এই শিক্ষককে শ্রদ্ধা জানিয়ে স্বাক্ষর করেন অনেকে। আগত সকলের জন্য ছিলো ভোজের আয়োজন।

স্বর্গীয় শিক্ষককে শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভী, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, সহ সভাপতি কমান্ডার গোপীনাথ দাশ, সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আনিসুর রহমান দিপু, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সহ সভাপতি এড. সরকার হুমায়ুন কবীর, নারায়ণগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপণ পরিষদের সভাপতি শংকর সাহা, মহানগর পূজা উদযাপণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন, সাধু নাগ মহাশয় আশ্রমের সাধারণ সম্পাদক তারাপদ আচার্য্য, নারায়ণগঞ্জ চেম্বারের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব রফিউর রাব্বী, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অসিত বরন বিশ^াস, সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শারমিন হাবিব বিন্নি, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্য ও স্বর্গীয় শিক্ষকের ছাত্রছাত্রীরা।

অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন, স্বর্গীয় শিক্ষকের সহধর্মীনি শিপ্রা রানী দেবী, ছেলে সায়ন্তন গোস্বামী ও মেয়ে তিথি গোস্বামীসহ পরিবারের সদস্যরা।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার রাত পৌনে ১২টায় রাজধানীর শমরিতা হাসপাতালে ৭৪ বছর বয়সে এই গুণী সংগীত ব্যাক্তিত্বের মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, এক মেয়েসহ আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু ও অসংখ্য শুভানুধ্যায়ী রেখে গেছেন।

এই বিশিষ্ট সংগীত গবেষকের স্মৃতিধন্য নারায়ণগঞ্জ। কর্মজীবনে নারায়ণগঞ্জ সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও সরকারী তোলারাম কলেজ ও নারায়ণগঞ্জ কলেজে শিক্ষকতা করেছেন দীর্ঘদিন। সুধীজন পাঠাগারের পরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here