নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ওসমান পরিবারের নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজিসহ অপকর্ম করে বেড়ানোর ফলস্বরূপ ফুডল্যান্ড বেকারীর মালিক হাবীব গ্রেফতার হওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছে নারায়ণগঞ্জবাসী। এবার তারা হাবীবের পেছনে থেকে যে কলকাঠি নাড়তো, সেই নেপথ্য নায়ক আবদুল করিম বাবু ওরফে ডিশ বাবুর গ্রেফতার দাবী করেছেন। আর তাহলেই নারায়ণগঞ্জে আর কেউ ওসমান পরিবারের নাম ভাঙ্গিয়ে অপকর্ম করার সাহস দেখাবে না।

ঘটনাসূত্রে প্রকাশ, নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ার আ: করিম বাবু ওরফে ডিশ বাবু ও ফুডল্যান্ড বেকারীর মালিক হাবীব দীর্ঘদিন যাবত ওসমান পরিবারের নাম ভাঙ্গিয়ে শহর জুড়ে নানা অপকর্ম করে বেড়িয়েছে। ডিশ বাবুর ছত্রছায়ায় হাবীব এতটাই বেপরোয়া হয়ে গিয়েছিলো যে, বিলাস বহুল মার্কেট থেকে শুরু করে সামান্য অটোরিক্সার কাছ থেকেও চাঁদা আদায় করার চেষ্টা করছিলো। নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ীরা হাবীব আতঙ্কে ভুগছিলো। টেলিফোনে বা সরাসরি গিয়ে হাবীব ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে মোটা অংকের চাঁদা দাবী করতো। আর এক্ষেত্রে নাম ব্যবহার করতো নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের প্রয়াত সংসদ সদস্য আলহাজ¦ নাসিম ওসমান পুত্র আজমেরী ওসমানের। ফলে ঐতিহ্যবাহী এই পরিবারের সুনাম ক্ষুন্ন হতে বসেছিলো।

কিছুদিন আগে হাবীব তার দলবল নিয়ে নিতাইগঞ্জ মোড়ের অটো স্ট্যান্ডে গিয়ে অটো প্রতি ১০০ টাকা করে চাঁদা দাবী করে। নিরিহ অটো শ্রমিকরা প্রতিবাদ করলে তাদের দুইজনকে মেরে হাসপাতালে পাঠান হাবীব ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা। এ নিয়ে নিতাইগঞ্জের অটো শ্রমিকরা একজোট হয়ে হাবীবকে গন পিটুনি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। অবস্থা বেগতিক দেখে সুচতুর হাবীব আর সে মুখো হয়নি।

অতি সম্প্রতি কালীর বাজারের এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে হাবীব। সে ব্যবসায়ী নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় হাবীবের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর মামলা দায়ের করেন। সে মামলায় জেলা গোয়েন্দা সংস্থা ডিবি সোমবার হাবীবকে গ্রেফতার করে।

হাবীব গ্রেফতারের খবর নারায়ণগঞ্জে ছড়িয়ে পরলে স্বস্তি নেমে আসে সাধারণ মানুষের মধ্যে। নারায়ণগঞ্জবাসী মনে করে, হাবীবকে পরিচালনাকারী নেপথ্য নায়ক ডিশ বাবুকে গ্রেফতার করা হলে তারা পুরোপুরি স্বস্তি লাভ করবেন। হাবীবের মতো ডিশ বাবুও ওসমান পরিবারের নাম ভাঙ্গিয়ে একের পর এক অপকর্ম করে যাচ্ছে। বাবুর এই অলৌকিক উত্থান দেখে অনেক প্রবীন নাগরিক মন্তব্য করেন ‘এক সময়ের মাউরা বাবু কেমন কইরা কোটিপতি হইয়া গেলো’। তাছাড়া হাবীব, বাবুর মতো সন্ত্রাসীদের কারনে নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ওসমান পরিবারের বদনাম হচ্ছে এবং নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমান ও নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান নারায়ণগঞ্জে উন্নয়নের জোয়ার বইয়ে দিলেও আগামী নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পাবেন কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। তাই সময় থাকতে বাবু, হাবীবের মতো সুযোগ সন্ধানীদের খুঁজে বের করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী জানিয়েছেন আপামর নারায়ণগঞ্জবাসী। তা না হলে এরা ঘুন পোকার মতো ওসমান পরিবারের সুনাম কেটে নিশ্চিহ্ন করে দেবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here